বার্সেলোনা–পিএসজির মহারণ আজ। এক দল বছরের পর বছর ধরে চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার চেস্টা করেও পারছে না,

গতবার ব্যর্থ হয়েছে একদম ট্রফি–ছোঁয়া দূরত্বে এসে। ফাইনালে উঠে হেরেছিল বায়ার্ন মিউনিখের কাছে।

আরেক দল মাঠ ও মাঠের বাইরের হাজারো সমস্যা থেকে উত্তরণের উপায় হিসেবে পাখির চোখ করেছে চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়কে।

বিশ্বজোড়া লাখ লাখ ফুটবলপ্রেমীদের চোখ আজ সেঁটে থাকবে তাই টিভি পর্দায়।

বার্সেলোনা-পিএসজি মুখোমুখি কার কৌশল কেমন হবে?

বার্সেলোনা-পিএসজি মুখোমুখি কার কৌশল কেমন হবে?
বার্সেলোনা-পিএসজি মুখোমুখি

মাঠের ভেতরের লড়াইয়ে এই দুই দলের ইতিহাস সমৃদ্ধ। শেষবার এই দুই দল যখন চ্যাম্পিয়নস লিগে মুখোমুখি হয়েছিল,

সেবার এই পিএসজিকেই অবিশ্বাস্যভাবে হারিয়ে পরের রাউন্ডে উঠেছিল বার্সা।

৪-০ গোলে প্রথম লেগ হারের পর সব অনুমান, পর্যালোচনা, ভবিষ্যদ্বাণীকে ঠুনকো বানিয়ে দ্বিতীয় লেগে ৬-১ গোলের জয় তুলে নিয়েছিল কাতালান ক্লাবটি।

এর ‘প্রতিশোধ’ পিএসজি নিয়েছিল মাঠের বাইরে। অর্থবিত্তের ক্ষমতা দেখিয়ে বার্সায় বিখ্যাত ‘এমএসএন’ ত্রয়ী ভেঙে দলে ভিড়িয়েছিল নেইমারকে।

যে নেইমার আবার এই দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে সবচেয়ে বেশি গোল করেছেন।

বার্সার হয়ে যে খেলোয়াড়টি বছরের পর বছর ধরে গলার কাঁটা হয়ে যন্ত্রণা দিচ্ছিল, সে খেলোয়াড়টিকে দলে ভিড়িয়ে ইউরোপীয় আধিপত্যের স্বপ্ন দেখা শুরু করে প্যারিসের দলটি

নেইমার বিহীন পিএসজি

নিশ্চিতভাবেই এবার প্রতিশোধের একটা আবহ থাকবে। লড়াইটিকে এতটা প্রাণবন্ত করে তুলতে গণমাধ্যমেরও ভূমিকা আছে।

দলের মধ্যে আমরা অবশ্য এ নিয়ে কথা বলি না, কারণ আমরা জানি এটা কঠিন লড়াই হবে।

আমরা পিএসজি সম্পর্কে জানি, তারা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গতবারের রানার্সআপ এবং এবারও তারা ফেভারিট দলগুলোর একটি।”

মাঝে অবশ্য অনেক কিছুই পাল্টে গেছে। বার্সেলোনার সেই জয়ের মূল নায়ক নেইমার ট্রান্সফার ফির বিশ্বরেকর্ড গড়ে পরের মৌসুমে পাড়ি জমান পিএসজিতে। কাম্প নউ ছেড়ে চলে গেছেন মাঝমাঠের তারকা ইনিয়েস্তাও।

তবে, এই ম্যাচে দেখা যাবে না নেইমারকে। চোট পেয়ে ছিটকে পড়েছেন ব্রাজিলিয়ান তারকা।

চোটের ধাক্কায় পিএসজি হারিয়েছে তারকা মিডফিল্ডার আনহেল দি মারিয়াকেও। সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সও খুব একটা আহামরি নয় দলটির।

মেসির বার্সেলোনা

কোচ রোনাল্ড কোমানের অধীনে কয়েক মাস আগেও যে ছন্নছাড়া অবস্থা ছিল দলটার, সেখান থেকে অনেকটাই উঠে এসেছেন মেসিরা।

বার্সেলোনা নামের ঝঞ্ঝাবিক্ষুব্ধ নৌকাকে এখন অনেকটাই স্থিতিশীল করে এনেছেন এই ডাচ কোচ।

লিগের শুরুটা বেশ খারাপ হলেও টানা ১২ ম্যাচ অপরাজিত থেকে উন্নতির আশা করছে বার্সা।

যদিও মাঝে সুপারকোপা ও কোপা দেল রে–এর অপ্রত্যাশিত কিছু পরাজয় বার্সেলোনার সামর্থ্যে একটু সন্দেহের কালিমা লাগিয়েছে।

সবকিছু মিলিয়ে একটু আশা, একটু নিরাশার দোলাচলেই চলছে বার্সার মৌসুম।

এ মৌসুমে মেসিরা একটা বড় স্বস্তি পেতে পারেন, যদি পিএসজির মতো দলকে হারানোর আনন্দ পেতে পারেন।

কাগজে-কলমে গত কয়েক বছরে পিএসজি কখনোই চ্যাম্পিয়নস লিগে টপকাতে পারেনি বার্সেলোনাকে।

এর আগে নকআউট রাউন্ডে দুই দল যে তিনবার মুখোমুখি হয়েছে, প্রত্যেকবারই পরের রাউন্ডে উঠেছে বার্সেলোনা।

তথ্যটা কোমানকে যথেষ্ট শান্তি দেবে, উদ্বুদ্ধ করবে—এ ম্যাচ জিততে। আর এ জেতার জন্য কোমানের কৌশল হতে পারে ৪-৩-৩ ছক।

গত শনিবার সবশেষ ম্যাচে আলাভেসের বিপক্ষে তাদের পারফরম্যান্স ছিল নজরকাড়া।

সবকিছু মিলে পিএসজি-বার্সেলোনার আরেকটি অসাধারণ লড়াইয়ের অপেক্ষায় ফুটবল দুনিয়া।

24livenewsbd ~ Getting all breaking and latest news 24 live in Bangla/বাংলা on 24livenewsbd.সর্বশেষ,রাজনীতি, বিশ্ব,খেলাধুলা, বিনোদন সহ আরো অনেক ফিচার।

Leave a Reply